Friday 25th of May 2018 10:57:38 AM
 
  Top News:
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে গণহারে দ্বিতীয়, তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হচ্ছে----মো:নাসির  |  দীর্ঘমেয়াদি সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার ৫টি সহজ উপায়  |  ৫ মিনিটের কম সময়ে এসিডিটির সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায়  |  Beat Diabetes: 4 Ways to Prevent Type 2 Diabetes  |  নারীদের সফলতার পেছনে রয়েছে এই ৩টি কারণ  |  পাঁচ বদভ্যাসে ক্ষুধা নষ্ট  |  এই খাবারগুলো খালি পেটে খাবেন না  |  রক্তচাপ বেড়ে যাওয়ার এ কারণটি জানেন কি?  |  কম খরচে বিদেশ ভ্রমণে এশিয়ার সেরা ৭  |  শুধু ছেলেরাই নয়, মেয়েদেরকেও দিতে হবে প্রেমের প্রস্তাব   |  উৎকৃষ্ট সব অভ্যাস যাতে মেলে সুখ  |  যে ৪টি কারণে মানুষ অজ্ঞান হয়ে যায়  |  মেঘদূত - জেবু নজরুল ইসলাম  |  3 Things Not To Say To Your Toddler  |   Men lose their minds speaking to pretty women  |  Lessons From a Marriage  |  চুইং গামে কী রয়েছে জানেন কি?  |  নিজেই তৈরি করে নিন দারুচিনি দিয়ে মাউথ ওয়াশ  |  সুস্থ থাকুন বৃষ্টি-বাদলায়  |  অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতি সামলে উঠুন ৪টি উপায়ে  |  
 
 

মন্ত্রী ও নেতাদের কান্ডে ক্ষুব্ধ-হতবাক শেখ হাসিনা !!

June 2, 2016, 1:51 AM, Hits: 622

 

এনজেবিডি নিউজ : আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা ও মন্ত্রীদের ওপর বিরক্ত হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সঙ্গে তিনি খানিকটা হতবাকও হয়েছেন।

গত রোববার রাতে জি-সেভেন শীর্ষ সম্মেলন উপলক্ষে জাপানে চার দিনের সফর শেষে দেশে ফেরার পর আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতা ও মন্ত্রীদের দেখতে না পেয়ে প্রধানমন্ত্রী রীতিমতো বিস্মিত হয়েছেন বলে জানান দলের কয়েক নেতা।

আগামী ১০-১১ জুলাই অনুষ্ঠেয় দলের জাতীয় সম্মেলনের মঞ্চ ও প্রধান ফটকের ডিজাইন প্রধানমন্ত্রীকে দেখানোর জন্য মঞ্চ ও সাজসজ্জা উপপরিষদের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক ও সদস্য সচিব মির্জা আজমের নেতৃত্বে কয়েকজন নেতা গত সোমবার রাতে গণভবনে গেলে এ বিষয়টি আলোচনায় উঠে আসে।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নেতাদের উদ্দেশে বলেন, ’জি-সেভেন শীর্ষ সম্মেলনের পর আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের নেতারা গণভবনে এসে আমার সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন; কিন্তু ওই সময়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের চোখে পড়েনি।’ প্রধানমন্ত্রীর এমন মন্তব্যের পর উপস্থিত নেতারা হতভম্ব হয়ে পড়েন।

ওই সময়ে নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য এসএম কামাল হোসেন, ঝালকাঠি-১ আসনের এমপি বজলুল হক হারুন, ছাত্রলীগের সাবেক দুই সভাপতি মাইনুদ্দিন হাসান চৌধুরী এবং এইচএম বদিউজ্জামান সোহাগ।

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরার পর ওই দিনই রাতে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের নেতারা গণভবনে গিয়ে তাকে শুভেচ্ছা জানান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ সময় তাদের সঙ্গে জি-সেভেন শীর্ষ সম্মেলনের বিভিন্ন অভিজ্ঞতাও বিনিময় করেছেন। তবে ওই সময় শীর্ষ নেতাদের মধ্যে শুধু আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি ও কার্যনির্বাহী সদস্য এসএম কামাল হোসেন উপস্থিত ছিলেন। এ সময় দলের নীতিনির্ধারক নেতাদের অন্য কেউ ছিলেন না। কোনো মন্ত্রীও উপস্থিত ছিলেন না। বিষয়টি সবার কাছেই কম-বেশি দৃষ্টিকটু ছিল।