Saturday 26th of May 2018 07:04:44 PM
 
  Top News:
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে গণহারে দ্বিতীয়, তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হচ্ছে----মো:নাসির  |  দীর্ঘমেয়াদি সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার ৫টি সহজ উপায়  |  ৫ মিনিটের কম সময়ে এসিডিটির সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায়  |  Beat Diabetes: 4 Ways to Prevent Type 2 Diabetes  |  নারীদের সফলতার পেছনে রয়েছে এই ৩টি কারণ  |  পাঁচ বদভ্যাসে ক্ষুধা নষ্ট  |  এই খাবারগুলো খালি পেটে খাবেন না  |  রক্তচাপ বেড়ে যাওয়ার এ কারণটি জানেন কি?  |  কম খরচে বিদেশ ভ্রমণে এশিয়ার সেরা ৭  |  শুধু ছেলেরাই নয়, মেয়েদেরকেও দিতে হবে প্রেমের প্রস্তাব   |  উৎকৃষ্ট সব অভ্যাস যাতে মেলে সুখ  |  যে ৪টি কারণে মানুষ অজ্ঞান হয়ে যায়  |  মেঘদূত - জেবু নজরুল ইসলাম  |  3 Things Not To Say To Your Toddler  |   Men lose their minds speaking to pretty women  |  Lessons From a Marriage  |  চুইং গামে কী রয়েছে জানেন কি?  |  নিজেই তৈরি করে নিন দারুচিনি দিয়ে মাউথ ওয়াশ  |  সুস্থ থাকুন বৃষ্টি-বাদলায়  |  অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতি সামলে উঠুন ৪টি উপায়ে  |  
 
 

লেখকদের কলাম

Displaying 11-20 of 430 results.

"ফিরে দেখা... ৫ বন্ধু হতে নেই মানা…

"ফিরে দেখা... ৫ বন্ধু হতে নেই মানা…

"ফিরে দেখা... ৫ বন্ধু হতে নেই মানা… এইচএসসি পাশ করে ফেললাম। সেকেন্ড ডিভিশনে। মহাখুশি আমি। এতদিন ছিলাম স্কুল পাশ নগন্য এক মানুষ। এখন কলেজ পাশ। টাইপটা আয়ত্ত্ব করতে পারলেই কেরাণীর চাকরি একটা নিশ্চিত। কি করব… তাই ভাবি বসে বসে। ভার্সিটিতে ভর্তির প্রশ্ন ওঠে না। আগে জীবিকা। পড়াশুনা সাবসিডিয়ারি। যশোর সরকারি এমএম কলেজে ভর্তি হলেও ক্লাস করা সম্ভব হবে না। সকাল আটটা থেকে দুপুর দুইটা পর্যন্ত ‘দৈনিক রাণার’ অফিসে চাকরি। তিনটা থেকে রাত পর্যন্ত টিউশনি। সময় কই আর! সাইন্স নিয়ে পড়তে গেলে নিয়মিত ক্লাস তো করতেই হবে। পাশাপাশি প্রাকটিক্যালও। আমার তো দরকার সার্টিফিকেট, পড়াশুনা নয়। সব বিবেচনায়...

একজন শিক্ষকের অপমান পুরো জাতিকে লজ্জিত করেছে = শিতাংশু গুহ

একজন শিক্ষকের অপমান পুরো জাতিকে লজ্জিত করেছে = শিতাংশু গুহ

নারায়ণগঞ্জের একজন হেডমাস্টারকে নিগৃহীত ও অপমান করার ঘটনাটি এখন অনেকটা পরিস্কার। ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটূক্তি করেছেন বলে স্কুলের পাশের মসজিদেরে মাইকে অপপ্রচার করে পরিকল্পিতভাবে তাকে হেনস্তা ও মারধর করা হয়।এ পর্যায়ে 'আবাবিল পাখী' হয়ে জাতীয় পার্টির স্থানীয় এমপি সেলিম ওসমানের সশরীরে আবির্ভাব। তার ভাষ্যমতে জনতার হাত থেকে বাঁচাতে তিনি প্রধান শিক্ষককে কানে ধরে 'ওঠ-বস' করান। শাস্তির একপর্যায়ে বয়োবৃদ্ধ শিক্ষক পড়ে গেলে এমপি সাহেব তাকে জনতার সামনে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করান। মিডিয়া জানায়, স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি তার বোনকে হেডমাস্টার পদে বসাতে চান, হয়তো তাই 'ধর্ম...

শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন : বাংলাদেশের পুনর্জন্মের ভিত্তি = অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান

শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন : বাংলাদেশের পুনর্জন্মের ভিত্তি = অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান

অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান  : বাঙালির স্বাধীন জাতিসত্তার তথা পৃথক জাতি রাষ্ট্রের চেতনার অন্যতম ভিত্তি যদি ১৯৫২-এর ভাষা আন্দোলনকে ধরে নেয়া হয় তাহলেও ইতিহাস সাক্ষ্য দেয়, বাঙালির রাষ্ট্রভাষা বাংলা হবে, এর বিরোধীদের মধ্যে বাংলা ভাষাভাষি মানুষের সংখ্যাও কম ছিল না। এদের অনেকে আমাদের রাজনীতিতে নেতৃত্বস্থানীয়ও ছিলেন। খাজা নাজিম উদ্দিন ও নূরুল আমিন এর নাম সবাই জানলেও ভিতরে ভিতরে এদের সংখ্যা ছিল প্রচুর। তাদের ধারণা ছিল সমগ্র পাকিস্তানে উর্দু রাষ্ট্রভাষা হলে তা ইসলাম আর ভূগোলের বিভ্রান্তি নিয়ে সৃষ্ট পাকিস্তানের অখণ্ডতার রক্ষাকবচ হিসেবে কাজ করবে। তারা বাংলা...

আমেরিকা ভ্রমনের উপর উপন্যাস 'সাগিনো ভ্যালি'

আমেরিকা ভ্রমনের উপর উপন্যাস 'সাগিনো ভ্যালি'

আমেরিকা ভ্রমনের উপর উপন্যাস 'সাগিনো ভ্যালি'।
প্রকাশিত হয়েছে 'চালচিত্র' সাহিত্য পত্রিকায়। বই আকারে বের হবে সামনের বইমেলায়।

ফেসবুক বন্ধুদের মধ্যে যাদের এখনও পড়ার সুযোগ হয়ে ওঠে নি, ধারাবাহিক এই পোষ্ট তাদের জন্য)

সাগিনো ভ্যালি

২০.
মায়ের আর্তি

ডেট্রয়েট পৌঁছালাম সকাল সাতটায়।
একঘণ্টা পরে সাগিনোর বাস। মালামাল বুঝে নিয়ে ট্রান্সপোর্ট অথরিটির টার্মিনালে বসে আছি।

আর ঘণ্টা তিনেক পরই দেখা হবে আমার বাবুর সাথে। ছেলের সাথে মিলনের আনন্দে একটু একটু করে ফিকে হয়ে যেতে থাকে সালাউদ্দিনের বিচ্ছেদ ব্যথা।

কফির সুবাসে মন উসখুশ করে উঠল। ডিসপোজেবল...

"ফিরে দেখা...

"ফিরে দেখা... "ফিরে দেখা... ৪ কৃষ্ণা দি দেখতে দেখতে এইচএসসি পরীক্ষা ঘনিয়ে আসে। ফর্ম ফিলআপের শেষদিন আজ। কিন্তু টাকার জোগাড় হয় নি। মা গিয়েছেন গ্রামের বাড়ি। ফেরেন নি এখনও। সামান্য কয়েক মন পাট ভাগের ভাগ পাই বছরে। বিক্রির সময় এখনও হয় নি। তবু অগ্রিম বেচে দিয়ে অর্ধেক টাকাও যদি পাওয়া যায়! ফরিদপুরের প্রত্যন্ত বিলের মধ্যে আমাদের গ্রাম। মোবাইল ফোনের যুগ নয় তখন। যোগাযোগ করার সুযোগও তাই নেই। বন্ধু স্বপনও চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। অধীর অপেক্ষায় স্বপনের দোকানে বসে থাকি। একটা আলমারি ডেলিভারি হবে। ফাইনাল পেমেন্ট পেলে সেখান থেকে বেতন হিসেবে এডভান্স নিয়ে সে ধার দেবে আমাকে। কিন্তু...

আমেরিকার উপরে লেখা ভ্রমণ উপন্যাস 'সাগিনো ভ্যালি'

আমেরিকার উপরে লেখা ভ্রমণ উপন্যাস 'সাগিনো ভ্যালি'

"(আমেরিকার উপরে লেখা ভ্রমণ উপন্যাস 'সাগিনো ভ্যালি'। প্রকাশিত হয়েছে সাহিত্য পত্রিকা 'চালচিত্র' তে। সুলেখক প্রযুক্তিবিদ মোহাইমেন আমিন ফেসবুকে রিভিউ করেছেন উপন্যাসটি। বই আকারে বের হবে সামনের বইমেলায়। উপন্যাসটি পড়ার সুযোগ যাদের হয়ে ওঠে নি, তাদের জন্য ফেসবুকে এই ধারাবাহিক পোষ্ট।) আজ ১৯তম পর্ব। সাগিনো ভ্যালি ১৯. জীবন আছে, লাইফ নাই বাসের টিকেট হাতে নিয়ে সিট নম্বর মেলানোর চেষ্টা করি। কিন্তু টিকেটে কোন নম্বর নেই। আঁতকে উঠে ভাবি, দাঁড়িয়ে যেতে হবে নাকি সারা পথ! পাশের সিটে বসা বাদামি চামড়ার একজনকে শুকনো মুখে জিজ্ঞাসা করি - আমার সিট কোনটা কী করে বুঝবো?...

যুদ্ধাপরাধীদের দাফনও রাষ্ট্রীয় মর্যাদায়!!! সিরাজী এম আর মোস্তাক

যুদ্ধাপরাধীদের দাফনও রাষ্ট্রীয় মর্যাদায়!!! সিরাজী এম আর মোস্তাক

১১ই মে, ২০১৬ ইং তারিখে যুদ্ধাপরাধে অভিযুক্ত মতিউর রহমান নিজামীকে প্রাণভিক্ষা আবেদনের যথেষ্ট সময় না দিয়ে রাতারাতি ফাঁসি কার্যকরের পর সম্পুর্ণ রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তায় তার নিজ এলাকায় মা-বাবার কবরের পাশে দাফনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। ছবিতে দেখুন, কতো সুন্দর এসি সমৃদ্ধ আধুনিক এ্যাম্বুলেন্স! সামনে-পিছে কতো গাড়ী! কতো নিরাপত্তা! স্বাধীনতার দীর্ঘ পয়তাল্লিশ বছর পর যুদ্ধাপরাধের বিচার সম্পন্ন করেও যুদ্ধাপরাধীকে এমন মর্যাদা দেয়া হচ্ছে। কোটাভোগী মুক্তিযোদ্ধাদেরকে রাষ্ট্রীয় মর্য়াদায় দাফনের নামে কয়েকজন পুলিশ দ্বারা কবরে লাথি মারানোর চেয়ে এর মূল্য কি বেশি নয়? ছবিতে দেখা যাচ্ছে,...

প্রাণভিক্ষার নিয়ম মানা হচ্ছে না = সিরাজী এম আর মোস্তাক

প্রাণভিক্ষার নিয়ম মানা হচ্ছে না =  সিরাজী এম আর মোস্তাক

বিচারিক নিয়ম অনুসারে, অভিযুক্ত ব্যক্তিকে প্রাণভিক্ষা আবেদনের সময় দেয়া উচিত। তা কমপক্ষে তিন থেকে সাতদিনও হতে পারে। বাংলাদেশে প্রচলিত বিচার প্রক্রিয়াতেও ত্ইা রয়েছে। আসামীকে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত শুনানোর পর থেকে তা গণনা শুরু হয়। তাতে উল্লেখ রয়েছে, একজন অভিযুক্ত ব্যক্তি তার অপরাধের জন্য প্রাণভিক্ষার আবেদন করবে কিনা, তা অনেক ভাবার বিষয়। আর রাষ্ট্রপতিও তা বিবেচনা করার জন্য বেশ সময় পান। তা কোনোমতেই তিনদিনের কম নয়। এটাই সুবিচারের লক্ষণ।
এই মুহুর্তে বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে সাজাপ্রাপ্ত মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির প্রক্রিয়া চলছে। সম্পুর্ণ অন্যায়ভাবে তা কার্যকর...

ভ্রমণ উপন্যাস 'সাগিনো ভ্যালি'

ভ্রমণ উপন্যাস 'সাগিনো ভ্যালি'

(আমেরিকার উপরে লেখা ভ্রমণ উপন্যাস 'সাগিনো ভ্যালি'।
প্রকাশিত হয়েছে সাহিত্য পত্রিকা 'চালচিত্র' তে। সুলেখক প্রযুক্তিবিদ মোহাইমেন আমিন ফেসবুকে রিভিউ করেছেন উপন্যাসটি।

বই আকারে বের হবে সামনের বইমেলায়।

উপন্যাসটি পড়ার সুযোগ যাদের হয়ে ওঠে নি, তাদের জন্য ফেসবুকে এই ধারাবাহিক পোষ্ট।)

আজ ১৮তম পর্ব।

সাগিনো ভ্যালি

১৮.
গ্রে হাউন্ড

আমেরিকার ডোমেস্টিক ফ্লাইটগুলো বড়ই যন্ত্রণাদায়ক।

কোন টিকিটের দাম কখন যে কত, তা বোঝা মুশকিল। রোববারে এক দাম তো সোমবারে আর এক।
মাস খানেক আগে কিনলে একরকম, সপ্তাহখানেক আগে কিনলে অন্যরকম। এমনও হয়, সকালে এক দাম,...

মাতৃত্ব = যুথিকা বড়ুয়া

মাতৃত্ব = যুথিকা বড়ুয়া

( এক )

সারাদিনের ক্লান্তিতে কখন যে তন্দ্রা লেগে এসেছিল চোখে টেরই পায়নি সুধারানি। হঠাৎ বাসন-পত্রের টুং টাং শব্দে ধড়্ফ্ড়্ করে ওঠে। মুহূর্তের জন্য স্বপ্ন না বাস্তব ঠাহরই করতে পাচ্ছিল না। চোখ পাকিয়ে দ্যাখে চারদিকে, শব্দটা এলো কোত্থেকে! শোনে কান পেতে। তক্ষুণিই ভ্যাঁ ভ্যাঁ করে কাঁদতে কাঁদতে রান্নাঘর থেকে বেরিয়ে আসে বাবলা। কত আর বয়স ওর। বছর সাতেকের হবে। মায়ের অজান্তে রান্নাঘরে ঢুকে এই কান্ড।

ক্ষীর মিঠাই, পিঠা-পায়েশ খুব প্রিয় বাবলার। সকালে খেয়ে ওর মন ভরেনি। বাটিটাই বড় ছিল। সুধারানি দিয়েছিল নামমাত্র। ঐটুকু খেয়ে তৃপ্তি হয় কারো! পেটের এককোণাও ভরেনি বাবলার। অপেক্ষায়...